follow us at instagram
Tuesday, August 04, 2020

প্রযুক্তিতে নারীর অংশগ্রহন নিয়ে অ্যাডা লাভলেস উৎসবে তারামনের আয়োজন

হারস্টোরি ফাউন্ডেশন এর সহযোগিতায় তারামনবিডি ডট কম সফল ভাবে উদযাপন করল অ্যাডা লাভলেস উৎসব।
https://taramonbd.com/wp-content/uploads/2020/01/81355235_977569155949359_5443577744363356160_n.jpg

হারস্টোরি ফাউন্ডেশন এর সহযোগিতায় তারামনবিডি ডট কম সফল ভাবে উদযাপন করল অ্যাডা লাভলেস উৎসব। বাংলাদেশী সফল নারীদের সঙ্গে নতুনদের নেটওয়ার্ক এবং আগামী দিনের চ্যালেঞ্জ মোকাবেলা করার প্রস্তুতির লক্ষ্য নিয়ে গত বৃহস্পতিবার শুরু হয় দুই দিনব্যাপি এই অনুষ্ঠান।  বাংলাদেশ ওপেন সোর্স নেটওয়ার্ক এর আয়োজনে উৎসব অনুষ্ঠিত হয়  এশিয়া প্যাসিফিক বিশ্ববিদ্যালয়ে।

ডিজিটাল বাংলাদেশে মেয়েরা কোথায়? এই শিরোনামে তারামনবিডি ডট কম কিছুদিন আগে বিশ্বের প্রথম প্রোগ্রামার অ্যাডা লাভলেস এর জন্মদিনে তিন পর্বের ধারাবাহিক ফিচার এর আয়োজন করেছিল। সেখান থেকেই উদ্বুদ্ধ হয়েই এই আয়োজনের একটি পর্ব পরিচালনা করা হয়।

যেখানে উপস্থিত ছিল নতুন প্রজন্মের তিন কন্যা, যারা কাজ করছে ডিজিটাল মিডিয়ায়।

আকিফা হক প্রিমা ( গেম ডিজাইনার ও কনসেপ্ট আর্ট), ফাতেমা জান্নাত মনি ( এনিমেটর ও কনসেপ্ট আর্টিস্ট) এবং শারমিন দোজা ( সাউন্ড রেকর্ডিস্ট ও ভিডিও রেকর্ডার) এর অংশগ্রহনে এই পর্বে আলোচনা হয় নতুন প্রযুক্তি ক্ষেত্রে মেয়েদের সুযোগ ও সম্ভাবনা নিয়ে। পাশাপাশি নিজেদের এই ক্ষেত্রে কাজ করার সুবিধা, অসুবিধা ও সংগ্রামের গল্প শোনান তাঁরা। আলোচনা শেষে উপস্থিত শিক্ষার্থী ও অতিথিদের সাথে প্রশ্ন উত্তরেও অংশ নেনে তাঁরা। পর্বটি পরিচালনা করেন তারামনবিডি ডট কমের সম্পাদক তায়রান রাজ্জাক।

আয়োজনে তথ্য প্রযুক্তিতে অবদান রাখায় বাংলাদেশ ওপেন সোর্স নেটওয়ার্কদেশের ১০ নারী ব্যাক্তিত্বকে বিশ্বের প্রথম প্রোগ্রামার অ্যাডা লাভলেস সম্মাননা প্রদান করা হয়। সম্মাননা প্রাপ্তরা হলেন-  আমেরিকার ন্যাশনাল সায়েন্স ফাউন্ডেশনের  প্রোগ্রাম ডিরেক্টর ডঃ ফাহমিদা নিলুফার চৌধুরী, শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় (সাস্ট) এর পদার্থবিজ্ঞান বিভাগের অধ্যাপক ড. ইয়াসমিন হক, জনতা ব্যাংক লিমিটেডের বোর্ডের সাবেক চেয়ারম্যান এবং সফটওয়্যার সংস্থা দোহাটেক নিউ মিডিয়ার চেয়ারম্যান লুনা শামসুদ্দোহা।

এছাড়াও এই সম্মাননা পেয়েছেন- বাংলাদেশ ব্যাংকের ইতিহাসে প্রথম মহিলা ডেপুটি গভর্নর নাজনীন সুলতানা, দেশের প্রথম নারী প্রোগ্রামার শাহেদা মুস্তাফিজ, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের জেনেটিক ইঞ্জিনিয়ারিং ও বায়োটেকনোলজি বিভাগের অধ্যাপক ড. জেসমিন।

আয়োজনে বক্তব্য দেন সম্মাননা পাওয়া অতিথিরা। তাঁরা তাঁদের কাজ ও সফলতার ইতিহাস তুলে ধরেন নতুন প্রজন্মের কাছে। কিভাবে সব বাধা পেরিয়ে , সংসার, সন্তান সামলে নিজেদের স্বপ্ন পূরণ করেছেন সেই গল্পই করেছেন এশিয়া প্যাসিফিক বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের সাথে। আর নতুনদের আহ্বান জানিয়েছেন তথ্যপ্রযুক্তি খাতে বিশেষ করে মেয়েরা যেন অনেক বেশি করে অবদান রাখতে পারে।

 

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *