follow us at instagram
Tuesday, August 11, 2020

ঘুরে আসুন ঢাকার কাছেই সবুজে ঘেরা বেস ক্যাম্প

শহরের খুব কাছেই আছে সবুজে ঘেরা এক নিভৃত স্থান। বাংলাদেশের প্রথম আউটডোর এক্টিভিটি ক্যাম্প-বেস ক্যাম্প।
https://taramonbd.com/wp-content/uploads/2020/02/base-2.jpg

কংক্রিটের জঙ্গল এই শহরে নিশ্বাস ফেলার মত স্বস্তিকর জায়গা কোথায়? তবে এই শহরের খুব কাছেই আছে সবুজে ঘেরা এক নিভৃত স্থান। বাংলাদেশের প্রথম আউটডোর এক্টিভিটি ক্যাম্প-বেস ক্যাম্প। যা ঢাকা থেকে ১৪ কিলোমিটার দূরে, ঢাকা ময়মনসিংহ হাইওয়ের সাথেই  গাজিপুরের রাজেন্দ্রপুরে অবস্থিত। যারা শুধু বেড়ানো মানে আয়েশ করতে চান না, চান রোমাঞ্চকর কিছু! সেই অ্যাডভেঞ্চার প্রিয়দের কথা মাথায় রেখেই ২০১৩ সালে চালু করা হয় ‘বেস ক্যাম্প’।

রিসোর্ট বলতেই প্রকৃতি ঘেরা আয়েশি কিছু জায়গার প্রত্যাশা চোখে ভেসে ওঠে আমাদের। বেস ক্যাম্পের পরিবেশও সেরকমই। তবে আছে ভিন্নতা। প্রতিদিনের একঘেয়েমি জীবনযাপনে এক দারুন পরিবর্তন অনুভব করবেন বেস ক্যাম্পে এসে! কারন এখানে আপনাকে প্রকৃতির সান্নিধ্যেই করতে হবে দারুন কিছু আউটডোর এক্টিভিটি ।

ঘড়ি মেপে চলা শহুরে জীবনে আমরা শারীরিক ভাবেও আলসে হয়ে যাচ্ছি। সেটাকে দূর করে আপনাকে দারুন ভাবে চাঙা করে দেবে বেস ক্যম্পের এইসব কার্যক্রম।

base camp-bangalista

নগ্রাউন্ড এবং অনট্রি এই দুইভাগে ভাগ করা হয় এক্টিভিটি চ্যালেঞ্জগুলো। নিরাপত্তা এবং শারীরিক অবস্থা বিবেচনা করে জন্য ইন্সট্রাক্টরেরা দিক নির্দেশনা দিয়ে থাকেন। এসবের মধ্যে রয়েছে  আর্চারী, ফুটবল, ক্রিকেট, ফরেস্ট ট্রেকিং, সাইক্লিং, জিপ লাইন-এর মতো কার্যক্রম! অনগ্রাউন্ডের তুলনায় অনট্রি এডভেঞ্চারগুলো কিছুটা কঠিন।

ক্যাম্পের পুকুরে মাছ ধরারও ব্যবস্থা রয়েছে। এছাড়াও রাতে তাঁবুতে থাকার ব্যবস্থা। যেখানে অন্তত ২০ জন থাকা যায় আছে এমন তাঁবু। আর যারা তাঁবুতে থাকতে চান না, তাদের জন্য আছে বাংলো। তাঁবুর পাশেই আয়োজন করা হয় ক্যাম্পফায়ার উৎসব, বারবিকিউ পার্টি! একটি সুইমিংপুল ও আছে। যেখানে প্রশান্তি মিলবে সারাদিন শেষের গোসলে।

বেসক্যাম্পে থাকার কিছু ব্যাপারে রেস্ট্রিকশন আছে। যেমন- ড্রাগস বা, অস্ত্র ক্যারি করা যাবে না। হার্ড ড্রিংকস বা বাইরের কোন খাবার আনা যাবে না ইত্যাদি। নির্দিষ্ট জায়গাতেই শুধু ধূমপান করতে পারবেন। স্কুলের বাচ্চাদের জন্যেও রয়েছে স্পেশাল জোন ও আলাদা প্যাকেজ! এছাড়াও রয়েছে ফ্যামিলি, ফ্রেন্ডস ও করপোরেট গ্রুপদের জন্য আলাদা প্যাকেজ বাছাইয়ের সুযোগ।

থাকার বন্দোবস্ত
বাংলোর এসি, এটাচ বাথরুম সহ সিঙ্গেল রুমের ভাড়া ২৫০০ টাকা, এবং ডাবল রুমের ভাড়া ৩৫০০ টাকা। থাকতে পারেন তাঁবুতেও। সেক্ষেত্রে ভাড়া প্যাকেজ অনুযায়ী ঠিক করতে হবে।

তাহলে পরিবার, বন্ধু বা অফিসের সবাই মিলে ঘুরেই আসতে পারেন বেস ক্যাম্প। ঢাকার এত কাছে সবুজে ঘেরা অনন্য পরিবেশ আপনাকে দেবে প্রশান্তি! আর এর কার্যক্রম আপনাকে করবে প্রফুল্ল।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *