follow us at instagram
Monday, April 06, 2020

শ্বাসপ্রশ্বাস ব্যায়াম করুন ও সুস্থ থাকুন, কারন এর উপকারিতা অনেক!

নিয়মিত শ্বাসপ্রশ্বাস ব্যায়াম অনুশীলনের মাধ্যমে আপনি হতে পারেন সুস্বাস্থ্যের অধিকারী।
https://taramonbd.com/wp-content/uploads/2020/02/1080x720-blank-excercise-1.jpg

শ্বাসপ্রশ্বাস আপনার স্বাস্থ্যের উপর খুব নিবিড় প্রভাব বিস্তার করে থাকে। দিনের শুরু যদি একটা গভির ও দীর্ঘ শ্বাস দিয়ে শুরু করেন। তাহলে আপনি প্রচুর উদ্যমের সাথে কাজ করার স্পৃহা খুঁজে পাবেন ! শ্বাসপ্রশ্বাসের উপর মানসিক চাপ, দুশ্চিন্তা এমনকি রোগপ্রতিরোধ ক্ষমতাও নির্ভর করে। একই দীর্ঘশ্বাস যেখানে আপনাকে বিষণ্ণতায় ফেলে দেয়। আবার সেই দীর্ঘশ্বাস আপনাকে সামনে এগিয়ে যাওয়ার জন্য দৃঢ় মনোবল।

সবচেয়ে মজার ব্যাপার, এই ফলপ্রদ ও কার্যকর ব্যায়াম যেকোন সময় যেকোন জায়গায় করা সম্ভব। গবেষণামতে মনঃসংযোগ সম্পর্কিত অনুশীলন মানসিক চাপ ও ব্লাড সুগার অধিক হ্রাস করে। যেখানে বিভিন্ন স্বাস্থ্য সচেতনামুলক শিক্ষা ব্যর্থ। অর্থাৎ মানসিক চাপ হ্রাস ভিত্তিক কৌশল যেমন মেডিটেশান ও শ্বাসপ্রশ্বাস কৌশল স্ট্রেস কমাতে সক্ষম। কেননা এক্ষেত্রে মনঃসংযোগ অবিরাম ভাবে থাকে। এবং আপনার খাদ্য তালিকা ও ডায়েট নির্দেশনা মেনে চলার দৃঢ় মনোবল থাকে।
ফলে সুগার লেভেল ও কমে যায়। শুধু ব্লাড সুগার নয় এর মাধ্যমে ব্লাড প্রেসারও নিয়ন্ত্রণে থাকে।

ব্রিথিং এক্সারসাইজের ক্ষেত্রে আপনার সম্পূর্ণ মনোযোগ শ্বাসপ্রশ্বাসের উপর থাকে। এর প্রভাব মস্তিষ্কেও পড়ে। ফলে মনোযোগ ও সতর্কতাও বৃদ্ধি পায়। শ্বাসপ্রশ্বাসের এই তাল ও ছন্দ মস্তিষ্কের স্মৃতি ধারন ক্ষমতা বৃদ্ধি করে।

নিয়মিত গভির শ্বাসপ্রশ্বাস গ্রহনের মাধ্যমে শুধু মনস্থিরই হয় না। বরং আপনি বিভিন্ন প্যানিক অ্যাট্যাক থেকেও মুক্তি লাভ সহ আরও অনেক উপকারিতা লাভ করেন।

বিভিন্ন ধরনের ব্রিথিং এক্সারসাইজের মধ্যে ৩টি সহজ এক্সারসাইজ আপনাদের জন্য দেওয়া হলঃ

শ্বাসপ্রশ্বাস ব্যায়াম ১
মুখ বন্ধ রেখে দ্রুত ও অবিরত নাক দিয়ে শ্বাসপ্রশ্বাস নেওয়ার মাধ্যমে এই ব্যায়াম সম্পন্ন হয়।
প্রতি সেকেন্ডে কম করে হলেও ৩ বার শ্বাস গ্রহন ও ত্যাগ করার চেষ্টা করবেন। তবে প্রথমবারের ক্ষেত্রে ১৫ সেকেন্ডের বেশি যেন এই ব্যায়াম না করা হয়।

শ্বাসপ্রশ্বাস ব্যায়াম ২
এই ব্যায়ামের জন্য সোজা হয়ে বসে দীর্ঘ শ্বাস ছাড়ুন। প্রতি প্রশ্বাসের সময় ১,২ করে গুনুন।
এভাবে ৫ বার করে ব্যায়াম শেষ করবেন। ব্যায়ামগুলো সঠিকভাবে করা হলে তাৎক্ষণিকভাবে চাঙ্গা অনুভব করবেন।

শ্বাসপ্রশ্বাস ব্যায়াম ৩
খুব পরিচিত একটি কৌশল। যেখানে একবার নাকের বামদিক ধরে ডানদিক দিয়ে নিঃশ্বাস নিয়ে আবার বামদিক ধরে ডানদিক দিয়ে শ্বাস ত্যাগ করবেন। আরেকবার বামদিক দিয়ে নিঃশ্বাস নিবেন।
এই ব্রিদিং এক্সারসাইজ মস্তিষ্ক শান্ত করে মনস্থির করতে সহায়তা করে।

খুব সাধারন হলেও এই ব্যায়াম আপনার স্বাস্থ্যের জন্য অনেক উপকারিতা বহন করে। নিয়মিত শ্বাসপ্রশ্বাস ব্যায়াম অনুশীলনের মাধ্যমে আপনি হতে পারেন সুস্বাস্থ্যের অধিকারী।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *